1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

হামিদুল হক চৌধুরী একজন শিক্ষক

  • Update Time : শুক্রবার, ৭ জুন, ২০১৯
  • ৪৩ Time View

।।জসিম আজাদ।।

হামিদুল হক চৌধুরী সম্পর্কে আমার বাবার বাবা। তিনি রাজনৈতিক ভাবে ব্যাপক পরিচিত হলেও আমার কাছে তিনি একজন শিক্ষক, একজন মানুষ গড়ার কারিগর। যিনি এ জীর্ণ সমাজ ব্যবস্থার বিপরীতে মানবিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় ২ দশক ধরে সংগ্রাম করছেন। নতুন প্রজন্মকে সুন্দর ও আলোর পথে আহবান করে হেঁটেই চলছেন আগামীর দিকে।

উখিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হওয়ার পরও কেন আমার কাছে হামিদুল হক চৌধুরী একজন শিক্ষক?

আমার কৈফিয়ত

হামিদুল হক চৌধুরী উখিয়ার প্রান্তিক জনপদের নারীদের শিক্ষার আলোয় অলোকিত করতে, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হয়ে উখিয়ার অলিতে গলিতে ঘুরেছেন। প্রতিটি বাড়ির দরজায় নক করে নারী জাগরণের গান শুনিয়েছেন। পরিবহন শ্রমিক ফরিদের মতন অসংখ্য পিতামাতাকে এসএসসি সম্পন্ন করা মেয়েটিকে কলেজের ভর্তি করানোর প্রতিশ্রুতি আদায় করে ঘর ছেড়েছেন। এ রকম অহরহ ঘটনার স্বাক্ষী উখিয়ার বহু ছাত্রী।

এর স্বীকৃতি হিসেবে গত ২ দশকে উখিয়ায় এমন কোন ঘর পাওয়া যাবে না যে ঘরে হামিদ স্যারের ছাত্রী নেই।

রাজনৈতিক নেতা কিংবা জনপ্রতিনিধিরা সমাজে কিছু দৃশ্যমান উন্নয়ন করে ভূয়সী প্রশংসা কুড়ান। বেশির ভাগ সমাধান জনগণ তাদের বন্দনায় লুটে পড়ে। কিন্তু আমি ব্যাক্তিগত ভাবে দৃশ্যমান উন্নয়নের (যেমন রাস্তা ঘাট সংস্কার) পাশাপাশি ভবিষ্যৎ সমাজের (টেকসই সমাজ) জন্য কিছু না করলে সেই উন্নয়নকে উজার করে স্বীকৃতি দিতে পারি না।

বহুতলীয় ভবরের জন্য উপযুক্ত ফাউন্ডেশন অার আগামীর টেকসই সমাজের জন্য মান সম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই। এ উপলব্ধি থেকে হামিদ স্যার মান সম্মত শিক্ষার প্রসারে কাজ করেছেন।

অনেক রাজনৈতিক নেতাদের উন্নয়নের সুবিধা এ সমাজ একটা নিদিষ্ট সময় পর আর পাবে না। কিন্ত হামিদ স্যারদের মতন যাঁরা (রাজনৈতিক নেতারা) শিক্ষা প্রসারে কাজ করেছেন তাঁদের সুবিধা এ সমাজ শতাব্দীর পর শতাব্দী পাবে।

তিনি উখিয়ার প্রান্তিক জনপদের প্রতিটি কোণায় কোণায় জ্বালিয়ে দিয়েছে আলোক বর্তিকা। যে আলোক বর্তিকা একদিন উখিয়ার আকাশকে সূর্যের ন্যায় দিপ্তি ছড়াবে।

হামিদুল হক চৌধুরী একজন রাজনীতিবিদ। একজন জনপ্রতিনিধি। একজন সাবেক কলেজ অধ্যক্ষ। তবে তিনি অামার কাছে একজন শিক্ষক।

২০০৯ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট নামক আমানতটি পায়ে গচ্ছিত রাখতে সুদূর চট্টগ্রাম থেকে যেদিন ছুটে এসেছিলাম, সেদিনও তিনি আমার কাছে শিক্ষক ছিলেন। এখনও শিক্ষক। আগামীতেও শিক্ষক থাকবেন।

লেখক: সম্পাদক, ডিবিডিনিউজ২৪ ডটকম

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com