1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
শিরোনাম:
ঝরা পাতার কবিতা | অন্তিক চক্রবর্তী কারাভোগের পর দেশে ফিরেছে ২৪ বাংলাদেশি উখিয়ার রুমখাঁ বড়বিলে জমি দখলের পায়তারা করছে স্থানীয় হাসন আলী শুদ্ধ বাংলা ভাষা চর্চার অঙ্গীকার অনলাইন প্রেসক্লাব সদস্যের ভাষা শহীদদের প্রতি উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধাঞ্জলি উখিয়ায় সাংবাদিককে হামলার ঘটনায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর সহ ২জনের বিরুদ্ধে মামলা সাংবাদিক শরীফ আজাদ’র উপর হামলায় কক্সবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের নিন্দা সূর্যোদয় প্রভাতী সদ্ধর্ম শিক্ষা নিকেতনের উদ্যোগে ৪০ জন শিক্ষার্থীকে খাতা-কলম বিতরণ সাংবাদিক শরীফ আজাদ’র উপর হামলার প্রতিবাদে রিপোর্টার্স ইউনিটি উখিয়া’র বিবৃতি বৈদ্যুতিক শক দিয়ে শিশুকে হত্যাচেষ্টা, কারাগারে সেই তোফায়েল

সানা মীরের অন্যরকম সেঞ্চুরি

  • Update Time : রবিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ২১ Time View

।।ক্রীড়া ডেস্ক।।

পাকিস্তান নারী জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক সানা মীর দারুণ এক কীর্তিতে নাম লেখালেন। এশিয়া নারী কোনো ক্রিকেটার হিসেবে খেললেন ১০০ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। যেখানে পাকিস্তান খেলেছে ১০২ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে মাঠে নেমে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সেঞ্চুরি পূর্ণ করলেন সানা মীর।

রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) করাচিতে আগে ব্যাট করে পাকিস্তান ৬ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ১৫০ রান। ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ক্যারিবীয়ানরা তোলে ১৩৮ রান। ফলে, ১২ রানের জয় পায় পাকিস্তান। সিরিজের প্রথম দুটি ম্যাচে হারলেও শেষ ম্যাচে জিতলো পাকিস্তান। তাতে, ২-১ ব্যবধানে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে ক্যারিবীয়ান মেয়েরা।

প্রথম ম্যাচে সফরকারীরা জিতেছিল ৭১ রানে, সেটি ছিল পাকিস্তানের ১০০তম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। পরের ম্যাচটি টাই হলে এক ওভারের সুপার ওভারে গড়ায়। সেখানে জেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ১২ রানের জয় পায় স্বাগতিক পাকিস্তান, যেটি আবার সানা মীরের ১০০তম ম্যাচ। নিজের অন্যরকম সেঞ্চুরির দিনে ব্যাট হাতে সানা মীর রানআউট হওয়ার আগে কোনো রান করতে পারেননি। তবে, বল হাতে ৪ ওভারে ২১ রান খরচায় তুলে নেন দুটি উইকেট।

৩৩ বছর বয়সী সানা মীর দারুণ এই অর্জনে উচ্ছ্বসিত। গণমাধ্যমে জানান, আমার কাছে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারা প্রতিটি ম্যাচই সমান। দেশের হয়ে প্রতিটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাওয়াটা অনেক বড় কিছু। শততম ম্যাচ খেলা সত্যিই দারুণ কিছু। বিশ্বের কাছে পাকিস্তানকে তুলে ধরার সুযোগ কখনোই নষ্ট করতে চাই না। নিজের সাধ্যের পুরোটাই দিতে চাই।

পাকিস্তান খেললো ১০২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। আর সানা মীর এশিয়ার কোনো নারী ক্রিকেটার হিসেবে ১০০তম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে শীর্ষে। মাত্র দুটি ম্যাচেই দেশের জার্সিতে মাঠে নামা হয়নি তার। ২০০৯ সালে নিজেদের মাটিতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ছিলেন সানা মীর। ইনজুরির কারণে দুটি ম্যাচেই শুধু খেলতে পারেননি।

এশিয়ার নারী ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলা সানা মীরের পরে আছেন তারই স্বদেশী বিসমাহ মারুফ (৯৪ ম্যাচ), ভারতের হারমানপ্রীত কাউর (৯৩ ম্যাচ)। তবে, বিশ্ব ক্রিকেটে সানা মীর ষষ্ঠ কোনো ক্রিকেটার হিসেবে ১০০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কীর্তি গড়লেন। এই মুহূর্তে পাকিস্তান সফর করা ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্রিয়েন্দ্রা ডটিন সর্বোচ্চ ১০৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।

২০০৫ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডেতে অভিষেক হওয়ার পর সানা মীর খেলেছেন ১১২টি ম্যাচ। ২০০৯ সালে আইরিশদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকের পর খেললেন ১০০ ম্যাচ। ওয়ানডেতে ব্যাট হাতে ১৫৫৮ রান করা সানা মীর বল হাতে নিয়েছেন ১৩৬ উইকেট। আর ক্রিকেটের ছোটো ফরম্যাটে ১০০ ম্যাচে ব্যাট হাতে ৮০ ইনিংসে ৭৯৬ রান করার পাশাপাশি বল হাতে নিয়েছেন ৮৪ উইকেট।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com