1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

শৈশবের প্রেম দক্ষিণ রত্না মোজাহের ঘোনা স প্রা বি | জসিম আজাদ

  • Update Time : শুক্রবার, ১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২২৭ Time View

এখন মধ্যরাত, অথচ দুচোখের পাতা এক হচ্ছে না। অজানা অভিমানে ঘুম যেন কোথাও পালিয়ে গেছে। এমন সময় হঠাৎ স্মৃতির পান্ডুলিপির নড়াচড়া অনুভব করছি। এ পান্ডুলিপি আমাকে মনে করিয়ে দিলো ২৫ বছর আগের কথা। সেই শৈশবের কথা। প্রাইমারি স্কুলের কথা। আমি দারুণভাবে স্মৃতি কাতর হয়ে পড়লাম।

চোখের সামনে জীবন্ত ভাসছে মাঠহীন সেই সেমিপাকা স্কুল, চটে বসে ক্লাস করার দৃশ্য, রোকসানা ম্যাডাম, দোলানী ম্যাডাম, বুড়ি ম্যাডাম ও স্কুল প্রধানের দায়িত্ব পালন করা বশির স্যারের সেই সময়ে ছবি। মনে পড়ছে প্রিয় শিক্ষকদের স্নেহমাখা শাসন। পড়া শিখে না আসার অপরাধে কান ধরে দাঁড়িয়ে থাকার সেই অসহাত্বের দৃশ্যসহ নানা স্মৃতি।

এতক্ষণ বলছিলাম আমার শৈশবের আবেগ ও ভালবাসার স্কুল দক্ষিণ রত্না মোজাহের ঘোনা রেজিঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কথা (পরবর্তীতে এ বিদ্যালয়কে জাতীয় করণ করা হয়েছে)। যে বিদ্যালয়টিতে পড়াশোনার সুযোগ পেয়ে আমার মত অগণিত শিক্ষার্থী সাদা-কালোর তফাৎ বুঝে। ন্যায়-অন্যায় বুঝে। হালাল-হারাম বুঝে৷ দমন-পীড়ন বুঝে৷ শোষণ ও অধিকার বুঝে। মানবপ্রেম ও দেশপ্রেম বুঝে। স্বাধীনতা ও পরাধীনতা বুঝে।

অগণিত শিক্ষার্থীকে এ আলোর পথ দেখাতে যে মানুষটি সবচেয়ে বেশি কাজ করেছে, যে মানুষটি তেলীপাড়ার মত একটি অনুন্নত পাড়ায় বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে অসংখ্য মানুষকে আধার থেকে আলোর দিকে নিয়ে আসতে সংগ্রাম করেছেন, আলোকিত মানুষ তৈরি করে সমাজকে আলোকিত করা প্রচেষ্টা চালিয়েছেন সেই মানুষটির প্রতি আজ গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

একই সাথে এই সমাজ সংস্কারককে ব্যাক্তিগতভাবে তেলীপাড়ার ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ পুরুষ হিসেবে স্বীকৃতি দিচ্ছি। কেননা তেলীপাড়ার মানুষের জন্য এর চেয়ে বড় কোন অবদান কেউ রেখেছে বলে আমার জানা নেই।

যে মানুষটি শিক্ষার জন্য, মানুষকে জ্ঞানের আলোয় আলোকিত করে সমাজ পরিবর্তনের জন্য নিজের স্বত্বীয় জমি দান করে বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন, এমন মানুষের চেয়ে মহৎ মানুষ আর কে হতে পারে?

সেই মহান ব্যাক্তিটি হলেন মোজাহের মিয়ার ছেলে আকতার কামাল চৌধুরী (প্রকাশ আকতার মেম্বার)। পিতা মোজাহের মিয়ার নাম অনুসারে বিদ্যালয়ের নাম রাখা হয়ে দক্ষিণ রত্না মোজাহের ঘোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

–সংবাদকর্মী।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com