1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

বাংলাদেশে জি নেটওয়ার্কের সব চ্যানেল বন্ধ

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০১৯
  • ৩৮ Time View

।।বিনোদন ডেস্ক।।

বাংলাদেশে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ভারতের জনপ্রিয় বাংলা চ্যানেল জি বাংলাসহ জি নেটওয়ার্কের সব চ্যানেলের সম্প্রচার। তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবদুর রাজ্জাক বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি। তবে জানা গেছে, তথ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে এই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

সোমবার বিভিন্ন ক্যাবল অপারেটর প্রতিষ্ঠানগুলোকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এমন নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে যে ক’টি বিদেশি চ্যানেল জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল তার মধ্যে কলকাতা হতে নিয়ন্ত্রিত জি বাংলা অন্যতম।

ক্যাবল অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এসএম আনোয়ার পারভেজ গণমাধ্যমকে বলেন, বাংলাদেশি ৩০টি চ্যানেল ছাড়া অন্য চ্যানেলও বন্ধ হয়ে যাবে, আপাতত তাই মনে হচ্ছে। জি নেটওয়ার্কের পর স্টার নেটওয়ার্কও বন্ধ হয়ে যাবে। তবে এ বিষয়ে এখনই আমার কোনও মন্তব্য নেই।

কেন এমনটা হচ্ছে? বিদেশি চ্যানেল বন্ধ হলে দেশের চ্যানেলের জন্য গ্রাহকরা ফি দিতে সম্মত হবেন কিনা। কিংবা কেবল অপারেটরদের ভবিষ্যৎ তাহলে কী দাঁড়াবে- এসব বিষয়ে এখনই কিছু বলতে নারাজ কোয়াবের সভাপতি এসএম আনোয়ার পারভেজ। তার ভাষ্য, ‘বিদেশের চ্যানেল বন্ধ হওয়া মানে আমাদের অপারেটিং সিস্টেমও বন্ধ হয়ে যাওয়া। কারণ, শুধু দেশের চ্যানেলের জন্য দর্শক আমাদের ফি দেবে না। এটা আসলে সমাধানের পথ নয়। মাথা ব্যথা করলে মাথা কেটে ফেলা কোনও সমাধান নয়।

এদিকে, ক্যাবল অপারেটর প্রতিষ্ঠান ‘জাদু ডিজিটালের’ কাস্টমার সার্ভিস কর্মকর্তা ফয়সাল আহমেদ মঙ্গলবার একাধিক গণমাধ্যমকে জানান, তথ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশক্রমে বাংলাদেশে জি নেটওয়ার্কের চ্যানেলগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, বিদেশি চ্যানেলগুলোতে অবাধে সম্প্রচার হচ্ছে দেশীয় বিজ্ঞাপন।

‘ক্যাবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইন-২০০৬’ এর উপধারা-১৯(১৩) এর বিধান অনুযায়ী, বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য বিদেশি কোনও চ্যানেলের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দেখানো দণ্ডনীয় অপরাধ। গত ৩০ মার্চ রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে এক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী এ কথা জানান।

‘সংকটে বেসরকারি টেলিভিশন’ শীর্ষক ওই গোলটেবিল বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী ক্যাবল অপারেটরদের উদ্দেশে বলেন, ‘ডাউন লিংক করে বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানো দণ্ডনীয় অপরাধ। শুধু এ সংক্রান্ত আইন যথাযথভাবে মানা হলে বছরে দেশে ৫০০ কোটি টাকা বাড়বে।’ তিনি টেলিভিশনে বিদ্যমান সমস্যার কথা ইঙ্গিত করে বলেন, ‘টিভিশিল্পকে সুরক্ষা দিতে আসুন সবাই একযোগে কাজ করি।’ এমন মন্তব্যের দুদিনের মাথায় সোমবার দুপুরনাগাদ হঠাৎ বন্ধ হয় জি নেটওয়ার্কের প্রায় সব চ্যানেল। তবে জি নেটওয়ার্কের বাইরে বিদেশি অন্য নেটওয়ার্কের চ্যানেলগুলো এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চলছিল।

সূত্র: মানবজমিন ও বাংলা ট্রিবিউন

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com