1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
শিরোনাম:
ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষ্যে উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব’র আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষ্যে উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ উখিয়ায় সড়কে গাড়ি থামিয়ে প্রকাশ্যে চাঁদা দাবি ফেসবুকে দুই সাংবাদিকের নামে ভিত্তিহীন লেখালেখির বিরুদ্ধে উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের বিবৃতি মুক্তিযোদ্ধাদের খসড়া তালিকা প্রকাশ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব’র তিনদিনের কর্মসূচি সিবিএন’র সংবাদকর্মী ছিনতাইয়ের শিকার, ছিনতাইকারী আটক জামালপুরের সেই ডিসির বেতন কমে অর্ধেক প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম আর নেই

পেট্রোলপাম্পে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট, বিপাকে চালক ও যাত্রীরা

  • Update Time : সোমবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২৩ Time View

পরিবহন ধর্মঘটের পর পেট্রোলপাম্পের কর্মবিরতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষ 

ডিবিডিনিউজ রিপোর্ট :

১৫ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে রাজশাহী, খুলনা ও রংপুর বিভাগের সব পেট্রোলপাম্পে চলছে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট। বন্ধ রয়েছে ডিপো থেকে তেল উত্তোলন ও পরিবহন। তেল ও পেট্রোল বিক্রি বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছেন চালকরা।

ধর্মঘট অব্যাহত থাকলে যান চলাচলেও বিঘ্ন ঘটতে পারে বলেও আশঙ্কা তাদের। এরই মধ্যে এসব এলাকায় মোটর সাইকেলসহ ছোট ছোট যানবাহনের চলাচল কমে গেছে।

সারিবদ্ধভাবে রাখা হয়েছে পেট্রোল, ডিজেলসহ জ্বালানি তেলবাহী ট্যাংকলরি। পেট্রোল পাম্প ও তেলের ডিপো বন্ধ থাকায় তেল না পেয়ে ফিরে যাচ্ছে যানবাহনগুলো।

কমিশন বৃদ্ধি, মহাসড়কে পুলিশ হয়রানি বন্ধ ও লাইসেন্স জটিলতার সমাধানসহ ১৫ দফা দাবিতে রাজশাহী, খুলনা ও রংপুর বিভাগের সব পেট্রোলপাম্প ও তেলের ডিপোতে চলছে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট। রোববার (১ ডিসেম্বর) সকাল থেকে পাম্পগুলোতে বন্ধ রয়েছে পেট্রোলসহ সব ধরনের জ্বালানি তেল বিক্রি।

ধর্মঘটের কারণে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন বাস-ট্রাক চালকরা। তারা বলছেন, ধর্মঘট অব্যাহত থাকলে জ্বালানির অভাবে বন্ধ হয়ে যেতে পারে যান চলাচল। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগের পাশাপাশি, ব্যাঘাত ঘটবে পণ্য পরিবহনেও।

সম্প্রতি পরিবহন ধর্মঘটের পর এবার পেট্রোলপাম্পের কর্মবিরতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ মানুষ।

পেট্রোলপাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের একাংশ এবং ট্যাংকলরি মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নেতারা বলছেন, দাবি পূরণে কার্যকরী আশ্বাস না পেলে অব্যাহত থাকবে কর্মসূচি।

রাজশাহী বিভাগীয় পেট্রোলপাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক ওয়াইজুল হক বলেন, ১৫ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা অনড় থাকবো।

জ্বালানি তেল পরিবেশক সমিতির সভাপতি সাজ্জাদুল করিম কাবুল বলেন, মন্ত্রণালয় থেকে গত আট মাসে কোনও সিদ্ধান্ত না দেয়াতে আমাদের ধর্মঘটে যেতে হয়েছে। আশা করি, আমাদের দাবি বিবেচনায় নিয়ে এগুলো বাস্তবায়নের জন্য যা যা করা দরকার তা করবেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

রংপুর জেলা পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটু বলেন, দাবি মেনে না নেয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলেব।

খুলনার খালিশপুরের পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা তিনটি তেল ডিপোর তেল উত্তোলন ও বিপণন বন্ধ রেখে কর্মসূচি পালন করছে শ্রমিক। ধর্মঘটের ফলে অতিরিক্ত ট্রাক-লরির চাপে ফিলিং স্টেশন, ট্রাক-লরি স্ট্যান্ডে জায়গা না হওয়ায় ট্রাক-লরিগুলোকে সড়ক-মহাসড়কের দুইপাশে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

১৫ দফা দাবি মেনে নিতে সরকারকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছিলো পেট্রোলপাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন। তবে ১৫ ডিসেম্বর (রোববার) আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে জ্বালানি মন্ত্রণালয়।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com