1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

নুসরাত হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

  • Update Time : শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৯
  • ৬৭ Time View

।।সারাদেশ ডেস্ক।।

ফেনীর মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে বিভিন্ন সংগঠন থেকে।

সংগঠনগুলো হলো, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা, বাংলাদেশ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (বাংলাদেশে জাসদ), ঢাকা মহানগর (উত্তর- দক্ষিণ), নিরাপদ নোয়াখালী চাই (বৃহত্তর নোয়াখালী প্রতিধ্বনি) আলোকিত গোপালগঞ্জ, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, মুসলিম সাপোর্ট বাংলাদেশ।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এ দাবি জানায় সংগঠনগুলো ।

সংগঠনের বক্তারা বলেন, ফেনী সোনাগাজী ইসলামীয়া ফাজিল মাদ্রাসার মেধাবী ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফী হত্যা মামলায় আসামিদের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যালের মাধ্যমে বিচার ও ফাঁসি কার্যকর করতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে এমন ধরনের ন্যাক্কারজনক অপরাধ করতে কেউ সাহস না পায়।

‘সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে যাতে কোন শিক্ষক দ্বারা যৌন নির্যাতন না হয়। মৃত্যুর পরে প্রতিবাদ নয়, নির্যাতনের সাথে সাথে সবাই প্রতিবাদ করতে হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীদের এ বিষয়ে আরও সতর্ক হতে হবে। প্রশাসনের কাছে আমাদের অনুরোধ প্রত্যেকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একটি লিস্ট তৈরী করতে হবে। সেই সাথে ওই সকল প্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীদের মত গ্রহণ করতে হবে যাতে আর কোনো শিক্ষার্থীকে মৃত্যু বরণ করতে না হয়।’ বলেন বক্তারা।

বক্তারা আরও বলেন, ধর্ষক যত বড় ক্ষমতাধর হোক না কেন আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়। সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি আর যেন কোন নুসরাতকে যৌন নির্যাতনের মাধ্যমে জীবন দিতে না হয়। সেই বিষয়ে সরকারের হস্তক্ষেপ চাই।

উল্লেখ্য, নুসরাতকে যৌন হয়রানি করার অভিযোগে তার মায়ের দায়ের করা মামলায় গত ২৭ মার্চ অধ্যক্ষ সিরাজকে গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু কারাগার থেকেই তিনি মামলা তুলে নেওয়ার জন্য নুসরাতের পরিবারকে চাপ দিতে থাকে। এর মধ্যে গত ৬ এপ্রিল সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসায় আলিম পরীক্ষার কেন্দ্রে গেলে মাদরাসার ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে কেরোসিন ঢেলে পালিয়ে যায় মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা।

এদিকে, আগুনে নুসরাতের শরীরের ৮০ থেকে ৮৫ শতাংশ দগ্ধ হয়। এ অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে, সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে। সেখানে বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের ৯ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ডের অধীনে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। উন্নত চিকিৎসার জন্য সিংগাপুরেও নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করা হয়। কিন্তু তার শরীর দীর্ঘ বিমানযাত্রার উপযোগী না থাকায় ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সিংগাপুরের চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে চালিয়ে যাওয়া হচ্ছিল চিকিৎসা। এত চেষ্টার পরও বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় মারা যান নুসরাত।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com