1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

দেশব্যাপী কড়া নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০২০
  • ১০৮ Time View

ডিবিডিনিউজ রিপোর্ট : দেশে জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় পুলিশের সব ইউনিটকে সতর্ক করে দেশব্যাপী কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। এ বিষয়ে সদর দফতর থেকে একটি চিঠি পুলিশের সব ইউনিটকে পাঠানো হয়েছে। সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি অপারেশনস-১) সাইদ তারিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত ওই চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি সব ইউনিটকে জানানো হয়েছে বলে দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, দেশে হত্যাকাণ্ড, নাশকতা ও ধ্বংসাত্মকমূলক কর্মকাণ্ডের পরিকল্পনা করছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আদলে গঠিত নব্য জেএমবির সদস্যরা।

এজন্য পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ জঙ্গি সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি রাখতে। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, জাতীয় বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট ও গোয়েন্দা তথ্য পর্যালোচনায় জানা গেছে, তথাকথিত আইএস আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কথিত ‘বেঙ্গল উলায়াত’ ঘোষণার উদ্যোগ নিয়েছে।

পুলিশ জানায়, আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক ঘটনা প্রবাহ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, সাধারণত বড় ধরনের সন্ত্রাসী হামলার মাধ্যমেই এ ধরনের ঘোষণা করা হয়। এ অবস্থায় আইএসের দেশীয় অনুসারী নব্য জেএমবির সদস্যরা হামলা পরিচালনাসহ যে কোনো জঙ্গি হামলা বা বোমা হামলার মাধ্যমে হত্যাকা-সহ নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড করতে পারে। তাই পুলিশের সকল ইউনিটকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে যথাযথ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা আবশ্যক।

গোয়েন্দা তথ্যের বরাতে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, পুলিশ (পুলিশের কোনো টিম, স্থাপনা বা যানবাহন) বিমানবন্দর, তিন দেশের দূতাবাস ভবন বা দূতাবাস সংশ্লিষ্ট বিশেষ ব্যক্তি অথবা শিয়া-আহমদিয়া উপাসনালয়, মাজার কেন্দ্রীয় মসজিদ, চার্চ, প্যাগোডা ও মন্দির টার্গেট করা হতে পারে। ওই চিঠিতে হামলার সময় সকাল ৬-৭টা অথবা সন্ধ্যা ৭-১০টায় হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। গোয়েন্দা তথ্যের বরাতে চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, হামলাকারীর বয়স ১৫-৩০ বছরের মধ্যে হতে পারে।

তার চেহারা ক্লিন শেভড/দাঁড়ি থাকতে পারে, গোফহীন হতে পারে। তার পরনে শার্ট/টিশার্ট, প্যান্ট, ক্যাপ মাস্ক, কেডস এবং পেছনে ব্যাকপ্যাক থাকতে পারে। হামলার সময় হামলাকারী অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়টিও উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে সুপারিশ হিসেবে উগ্রপন্থি বা তাদের সংগঠনের ওপর নজরদারি বৃদ্ধি, পুলিশের সবাইকে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বজায় রাখা, পুলিশের গাড়ি-স্থাপনা খালি বা পরিত্যক্তভাবে ফেলে না রাখা, পুলিশের ভবনগুলোতে প্রবেশের সময় নিরাপত্তা ও পরিচয় নিশ্চিত করা, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ওপর নজরদারি বৃদ্ধি করা, চেকপোস্টে তল্লাশি বাড়ানো, সন্দেহ হলে ব্যাগ-দেহ তল্লাশি করা, সন্দেহজনক এলাকায় রেইড করতে সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

পুলিশের অ্যান্টিটেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, বেঙ্গল উলায়াত বলতে সংগঠনটির বাংলাদেশ শাখা বোঝানো হয়েছে। গণমাধ্যমের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে এবং নিজেদের সদস্যদের উজ্জীবিত করতে বিভিন্ন সময়ে তারা এ ধরনের শাখা ঘোষণা করে থাকে। বিশেষ করে আরবি জিলহজ মাসে হামলা করাকে জঙ্গিরা বিশ্বব্যাপী অধিকতর পুণ্যের কাজ বলে মনে করে। তাই এ মাসে সব সময়ই হামলার একটা আশঙ্কা থেকে যায়। মাসটি ঘিরে তাই সব সময়ই পুলিশ সদস্যদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, পল্টনের বোমা বিস্ফোরণে যে ধরনের বিস্ফোরক ছিল, তা সাধারণত জঙ্গিরাই ব্যবহার করে। এ বিষয়ে সিটিটিসি থেকে ডিএমপির সব উপকমিশনারকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। তারপরও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দিয়ে নিয়মিত চেকপোস্ট বসাতে এবং নতুন ভাড়াটেদের তথ্য সংগ্রহ করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে এমনটি নিশ্চিত করেছেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com