1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

উখিয়ায় ফোর মার্ডারের ঘটনাস্থলে একজনের পায়ের ছাপ

  • Update Time : শনিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৫ Time View

পলাশ বড়ুয়া :

কক্সবাজারের উখিয়ায় একই পরিবারের চার সদস্য হত্যাকা-ের রহস্যের জট এখনো খুলতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তবে অপরাধীদের চিহ্নিতে পুলিশ মাঝামাঝি অবস্থানে রয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন। এ পুলিশ কর্মকর্তার দাবি, সুস্পষ্ট কোনো ক্লু পাওয়া না গেলেও ইন্টারনাল কেউ এ ঘটনায় জড়িত। এতে পারিবারিক এবং আর্থিক বিষয়ও থাকতে পারে। এ বিষয়ে পরিবারের সদস্য এবং সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। অতি শিগগিরই অপরাধীকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনতে সক্ষম হবেন বলেও জানান তিনি।

উখিয়ার রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্বরত্না গ্রামে গত বুধবার রাতে একই পরিবারের নারী ও শিশুসহ চারজনকে জবাই করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরদিন সকালে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি জানাজানি হলেও কুয়েত প্রবাসী রোকন বড়ুয়ার ওই বাড়ি থেকে সন্ধ্যা ৬টায় লাশগুলো উদ্ধার করে পুলিশ। খবর পেয়েই দেশে ফিরেছেন স্বজনহারা রোকন। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কক্সবাজার পৌঁছলে সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা মা সখি বড়ুয়া, স্ত্রী মিলা বড়ুয়া, একমাত্র ছেলে রবিন বড়ুয়া ও ভাতিজি

সনি বড়ুয়ার নিথর দেহ দেখে বারবার জ্ঞান হারাচ্ছিলেন। ঘটনা তদন্ত করা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কাছে রোকন বড়–য়া ও স্বজনরা জানান, এ ঘটনার সঙ্গে ভাই শিপু বড়ুয়া ও তার স্ত্রী রিকু বড়ুয়ার সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে প্রকৃত রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে জানান রোকন।

পুলিশের বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম থেকে আসা ফরেনসিক এক্সপার্ট টিম ঘটনাস্থলে যে পায়ের ছাপগুলো পেয়েছে, তা একজনের। সেখান থেকে ধারণা করা হচ্ছে, চারজনের হত্যাকারী একজন হওয়ার সম্ভাবনাই খুব বেশি। পাশাপাশি এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড হতে পারে। তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিশ এসব ক্লু প্রকাশ করছে না। এদিকে স্থানীয়রা জানান, পরিবারটি আগে তেমন সচ্ছল ছিল না। রোকন বড়ুয়া কুয়েত যাওয়ার পরই আর্থিকভাবে বেশ সচ্ছল হয়।

এ প্রসঙ্গে উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম মজুমদার জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখনো কেউ আটক হয়নি। তবে বিভিন্ন সূত্র ধরে তদন্ত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ঘটনায় অজ্ঞাত আসামি করে নিহত মিলা বড়ুয়ার বাবা শশাংক বড়ুয়া বাদী হয়ে উখিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে শুক্রবার বিকাল ৫টায় কোটবাজারস্থ বৌদ্ধ মহাশ্মশান ও বোধিজ্ঞান ভাবনা কেন্দ্রে নিহতদের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এর আগে পূর্বরত্না আনন্দ বিহারে নিহতদের উদ্দেশে সংঘদান ও পুণ্যদান হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com