1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

কক্সবাজারে সোমবারও ২৪ জনের করোনা রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’

  • Update Time : সোমবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২০
  • ২৫ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজারে সর্বশেষ দুই রোহিঙ্গাসহ ২৪ জনের সন্দেহভাজন রোগীর করোনা ভাইরাসের নমুনা টেষ্ট করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে এই ২৪ জনের করোনা রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ এসেছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. অনুপম বড়ুয়া।

ডা. অনুপম বড়ুয়া বলেন, কক্সবাজার মেডিকেল ল্যাবে গত ১২ দিনে ২০২ জন সন্দেহভাজন করোনা ভাইরাস রোগীর নমুনা টেষ্ট করা হয়। এই পর্যন্ত তাদের সবার রিপোর্ট এসেছে ‘নেগেটিভ’। রোববার কক্সবাজারের ৮টি উপজেলা, পার্বত্য জেলা বান্দবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা, উখিয়া ও টেকনাফের ৩৪টি আশ্রয় শিবির থেকে মোট ২৪ জনের সন্দেহভাজন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তারমধ্যে কুতুবদিয়া উপজেলার ১০ জন, ক্যাম্পের দুই রোহিঙ্গাসহ বাকি উপজেলাগুলো হতে ১ জন কিংবা ২ জন করে এই নমুনাগুলো সংগ্রহ করা হয়। তবে সোমবার দুপুরে প্রকাশিত সন্দেহভাজন এই ২৪ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় স্বস্তির মধ্যে রয়েছি। কারণ এখনো পর্যন্ত কক্সবাজারে কোন করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়নি।

কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা. মো. মাহাবুবর রহমান বলেন, আমরা প্রতিদিনই কক্সবাজারের ৮টি উপজেলা, রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা হতে সন্দেহভাজন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে থাকি। পরবর্তীতে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে ল্যাবে তা টেষ্ট করা হয়। এখন আমরা বিশেষ করে; বেশি বেশি সন্দেহভাজন ব্যক্তির টেষ্ট করার চেষ্টা করছি। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে প্রতিদিন ৯৬ জন রোগীর নমুনা পরীক্ষার সুযোগ রয়েছে। কিন্তু উপজেলাগুলো হতে পর্যাপ্ত পরিমাণ নমুনা আসছে না।

তিনি আরও জানান, প্রতিদিনই রাত ৮টার মধ্যে কক্সবাজারের ৮টি উপজেলাসহ বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা হতে সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর নমুনাগুলো পরীক্ষার পরই প্রতিবেদন ঢাকায় আইইসিডিআরে পাঠানো হয়। পরবর্তীতে ওখান থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। সোমবার কক্সবাজারের যে ২৪ জনের রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে, তাদের সবারই রিপোর্ট এসেছে ‘নেগেটিভ’। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবটিকে ঢাকাস্থ রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইইডিসিআর করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য নির্ধারণ করেছে। পহেলা এপ্রিল থেকে ল্যাবটি চালু হয়েছে।

ল্যাব কর্তৃপক্ষের দেয়া তথ্য মতে, এপ্রিলের প্রথম ৫দিনে ২৪ জন, ৬ এপ্রিল ২৫ জন, ৭ এপ্রিল ২৪ জন, ৮ এপ্রিল ২৭ জন, ০৯ এপ্রিল ৩৭ জন, ১০ এপ্রিল ৯ জন, ১১ এপ্রিল ৩২ জন ও ১২ এপ্রিল ২৪ জনের নমুনা টেষ্ট করা হয়। সবমিলিয়ে মোট ২০২ জনের পরীক্ষা করা হয় কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে স্থাপিত ল্যাবে।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com