1. azadzashim@gmail.com : বিডিবিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম :
  2. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :

উখিয়ায় সাবেক শিবির ক্যাডারের হাতে হামলার শিকার হলেন প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা!

  • Update Time : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৫৯২ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজারের উখিয়ায় প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা তোফাইল আহমেদ (৬৪) সাবেক শিবির ক্যাডার শাহ আলম প্রকাশ সি-লাইন শাহ আলম (৪০) কর্তৃক নির্মমভাবে হামলার শিকার হয়েছে। হালমার শিকার এ আওয়ামী লীগ নেতা হলদিয়াপালং ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে হামলাকারী এ সি-লাইন শাহ আলম দীর্ঘদিন ধরে হলদিয়াপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যনের ছত্রছায়ায় বিচার শালিশ করার নামে নানা বির্তকিত কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিলেন বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। শুধু তাই নয় তার বিরুদ্ধে সরকার বিরোধী বেশ কয়েকটি নাশকতার মামলাও আছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

১৭ অক্টোবর (শনিবার) সন্ধ্যা ৭ টায় কোর্টবাজারের আরব সিটি সেন্টারের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

সূত্রে জানা গেছে, ১৪ অক্টোবর সি-লাইন শাহ আলম হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলমের প্রতিনিধি হয়ে হলদিয়াপালং ইউনিয়নের মৌলভীপাড়া এলাকায় জমি সংক্রান্ত এক শালিশী বৈঠকে যান। সেখানে আওয়ামী লীগ নেতা তোফাইল আহমদকে দোষী সাব্যস্ত করে অন্যায়ভাবে বিচারের বায় দিলে তিনি ঐ রায় প্রত্যাক্ষণ করায় কোর্টবাজার আসলে মারধর করার প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে আসেন। এ ঘটনার তিন দিন পর আজ আওয়ামী লীগ নেতা তোফাইল আহমেদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলমের ডাকে কোর্টবাজার আসেন এবং চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে চলে যাওয়ার সময় সি-লাইন শাহ আলম প্রবীণ এ আওয়ামী লীগ নেতাকে চেয়ারম্যানের সামনে প্রকাশ্যে ব্যাপক মারধর করে গুরুতর আহত করে। পরে উপস্থিত জনতা তাকে দ্রুত উখিয়া হাসপাতালে নিয়ে যান বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। পরিবার সূত্রে জানা যায় এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

হামলার শিকার তোফাইল আহমদ জানান, শালিশী বৈঠকের আগে সি-লাইন শাহ আলম তার কাছ থেকে টাকা দাবী করেছিলো। টাকা না দেওয়ায় বৈঠকের দিন তার উপর পরিকল্পিতভাবে অবিচার করা হয়। এর পতিবাদ করায় তাকে আজ হামলার শিকার হতে হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে অভিযুক্ত শাহ আলমের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি পুরো বিষয়টি অস্বীকার করে এ ধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি বলে জানান।

চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি হিসেবে শালিশী বৈঠকে পাঠানো যায় কিনা এবং চেয়ারম্যানের সামনে এমন নির্মমভাবে মারধরের ঘটনায় তার কোন ভূমিকা ছিলো কিনা জানতে হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলমের সাথে তার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে উখিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তোফাইল আহমেদ আওয়ামী লীগের নিবেদিত মানুষ। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রয়াত এডভোকেট আহম্মদ হোসাইনের ঘনিষ্ট সহচর। নিরিহ মানুষটির উপর প্রকাশ্যে নেক্কার জনক এ হামলার তীব্র নিন্দা ও দৃষ্টান্তমূলক শান্তি দাবী করেন। পাশাপাশি হামলাকারীদের প্রশ্রয়দাতাদেরও বিচারের আওতায় আনার জোর দাবী জানান। প্রবীণ এ আওয়ামী লীগ নেতার হামলার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্য আইন শৃংখলা বাহিনীর প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধও জানান তিনি।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ জানান, এখন পর্যন্ত তিনি এ ধরণের কোন অভিযোগ পাননি। অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

More News Of This Category
© 2018 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | dbdnews24.com
Site Customized By NewsTech.Com